মেনু নির্বাচন করুন

যোগাযোগ ও ঠিকানা

পূর্বে গরু ও মহিষের গাড়ীতে এবংঘোড়ায় চড়ে চলাচল হ’ত।এখন কাঁচা সড়ক পথে ঘোড়ার গাড়ী,রিক্সা-ভ্যান, পাকা সড়কপথে মোটর সাইকেল বাইক,প্রাইভেট কার,কোচস্টার,জীপ,মাইক্রো,বাস/সি.এনজি গাড়ীযোগে যাতায়াত করা যায়। নদী পথে ইঞ্জিন চালিত নৌকায় যাতায়াত করাযায় অবশ্যনদী নাব্য থাকলে। ঢাকার কমলাপুর থেকে রেলরোগে এবং মহাখালি থেকেবাসযোগে ইসলামপুর আসা যায়। জামালপুর সদর থেকে বাস, রেল এবং অন্যান্যযানবাহন যোগে ইসলামপুর আসা যায়।

ঢাকাথেকে সড়ক ও রেল পথে আসা যায় জামালপুর সদর। তবে সড়ক পথের চেয়ে রেলপথটাইসুবিধাজনক, নিরাপদ ও আরামদায়ক। ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে আন্তঃনগরতিস্তা এক্সপ্রেস, যমুনা এক্সপ্রেস, ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস, অগ্নিবীনাএক্সপ্রেস, জামালপুর কমিউটার, দেওয়ানগঞ্জ কমিউটার ট্রেনে জামালপুর যাওয়াযায়। ভাড়া প্রথম শ্রেণী ১৫৫ টাকা, শোভন চেয়ার ১০৫ টাকা, শোভন ৮০ টাকা, সুলভ ৫৫ টাকা এবং দ্বিতীয় শ্রেণী ৫০ টাকা।

ঢাকা-জামালপুর সদর পথে চলাচলকারী ট্রেনের সময়সূচী জানতে এখানে ক্লিক করুন

এছাড়াওঢাকার মহাখালী বাস স্টেশন থেকে মহানগর ও রাজীব পরিবহনের বাস সকাল থেকেসন্ধ্যা পর্যন্ত আধাঘণ্টা পরপর ছেড়ে যায়। ভাড়া ১৮০-২৫০ টাকা। চট্টগ্রামথেকে প্রতিনিধি পরিবহন, সিলেট থেকে শাহজামাল পরিবহন, রাজশাহী ও বগুড়া থেকেপদ্মা পরিবহন এবং রংপুর থেকে সীমান্ত পরিবহনের বাসে সরাসরি জামালপুর আসাযায়।

কোথায় থাকবেন

ইসলামপুর থাকার জন্য বেশ কিছু হোটেল আছে। তার মধ্যে জেলা পরিষদে সবচেয়ে ভালো রেষ্টহাউস, বাজারে হোটেল সাধারণ মানুষের হোটেল আছে যা কম খরচে থাকা যায়।